আত্মহত্যাকারী ব্যক্তির জন্য দুআ, ইস্তেগফার করা ৷

প্রশ্ন
হুজুর আমার বোন কোনো এক কারণে আত্মহত্যা করেছে ৷ আমরা জানি আত্মহত্যা করলে জাহান্নামী ৷ আমার বোনো জাহান্নাম থেকে বাচার জন্য আমরা কি করতে পারি? আমরা কি তার জন্য দুআ, ইস্তেগফার করতে পারব?
উত্তর
আত্মহত্যা করা কবীরা গুনাহ ৷ আর যত বড় গুনাহগারই হোক না কেন যদি ঈমান থাকা অবস্থায় মারা যায়, তাহলে তার জন্য দুআ করা যাবে ৷ অতএব আত্মহত্যাকারীর জন্য দুআ করা যাবে। সুতরাং আপনারা আপনার বোনের জন্য দুআ, ইস্তিগফার করতে পারবেন। এছাড়া এখন আপনাদের আর কিছু করার নেই৷
জাবির রা: থেকে বর্ণিত, তুফাইল ইবনে আমর রা: এর গোত্রের এক ব্যক্তি আত্মহত্যার পর রাসূলুল্লাহ সা: তার জন্য মাগফেরাতের দুআ করেছিলেন ৷
-সহীহ মুসলিম, হাদীস ১১৬৷
আব্দুল্লাহ ইবনে উমর রা: থেকে বর্নিত তিনি বলেন-
‘আমরা কবীরা গুনাহে লিপ্ত ব্যক্তিদের জন্য মাগফেরাতের দুআ করতাম না। পরে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম থেকে যখন শুনলাম- “আল্লাহ তাআলা তাঁর সাথে শরীক করাকে ক্ষমা করবেন না। শিরক ছাড়া যে কোনো গুনাহ যাকে ইচ্ছা ক্ষমা করে দিবেন।” আর আমি উম্মতের মধ্যে কবীরা গুনাহে জড়িয়ে যাওয়া লোকদের জন্য আমার সুপারিশের ক্ষমতাকে জমা করে রেখেছি” এরপর থেকে আমরা তাদের জন্য দুআ করতাম।
-মুসনাদে বাযযার, হাদীস ৫৮৪০; মাজমাউয যাওয়ায়েদ, হাদীস ১৭৬০১৷
উত্তর প্রদানে মুফতী মেরাজ তাহসীন মুফতীঃ জামিয়া দারুল উলুম দেবগ্রাম ব্রাহ্মণবাড়িয়া ৷

উত্তর দিয়েছেন : মুফতি মেরাজ তাহসিন

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Pin It on Pinterest