আমাদের এলাকায় ব্যাপক রেওয়াজ আছে যে, বিত্তবান লোকেরা দরিদ্র শ্রেণীর…

প্রশ্ন

আমাদের এলাকায় ব্যাপক রেওয়াজ আছে যে, বিত্তবান লোকেরা দরিদ্র শ্রেণীর লোকদেরকে গরু-ছাগল পোষার জন্য ক্রয় করে দেয়। দরিদ্র লোকেরা গরু-ছাগল পালে আর বছর দেড়েক পর তা বিক্রি করে। বিক্রিলব্ধ টাকা থেকে ক্রয়মূল্য বাদ দিয়ে লাভটুকু উভয়ে সমানভাবে ভাগ করে নেয়। প্রশ্ন হল, এ ধরনের চুক্তি করা সহীহ কি না। যদি সহীহ না হয় তাহলে এ ধরনের কারবার করার কোনো সহীহ পন্থা আছে কি? জানিয়ে বাধিত করবেন।

উত্তর

গরু-ছাগল পালনের প্রশ্নোল্লেখিত পদ্ধতিটি শরীয়তের ইজারা-নীতির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। এক্ষেত্রে সহীহ তরীকায় চুক্তি করতে চাইলে নিম্নের পন্থাটি অবলম্বন করা যেতে পারে। গরুর মালিক গরু পালনকারীর সঙ্গে নির্দিষ্ট পারিশ্রমিকের ভিত্তিতে চুক্তি করবে। গরুতে অংশিদারিত্বের চুক্তি করবে না। অর্থাৎ গরুর পূর্ণ মালিকানা গরুর মালিকেরই থাকবে। গরুর সব ধরনের খরচও তাকে বহন করতে হবে। গরু বিক্রি করা হলে এর বিক্রিলব্ধ পুরো টাকা সেই পাবে। এতে গরু পালনকারীর কোনো অংশ থাকবে না। সে গরুর দেখাশুনা ও লালন-পালনের জন্য শুধু নির্ধারিত পারিশ্রমিক পাবে।

-খুলাসাতুল ফাতাওয়া ৩/১১৪; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ১৫/৩৪৫; ফাতাওয়া বাযযাযিয়া ৫/৩৭; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ৪/৪৪৫; শরহুল মাজাল্লাহ, খালিদ আতাসী ২/৫৪২

উত্তর দিয়েছেন : মাসিক আল-কাওসার

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Pin It on Pinterest