Home » মাসায়েল / ফতোয়া » খাওয়া-পোশাক » আমাদের এলাকায় প্রচলন যে, আযান-ইকামতে ‘আশহাদু আন্না মুহাম্মাদার রাসূলুল্লাহ’ বলার…

আমাদের এলাকায় প্রচলন যে, আযান-ইকামতে ‘আশহাদু আন্না মুহাম্মাদার রাসূলুল্লাহ’ বলার…

প্রশ্ন

আমাদের এলাকায় প্রচলন যে, আযান-ইকামতে ‘আশহাদু আন্না মুহাম্মাদার রাসূলুল্লাহ’ বলার সময় তর্জনীতে চুমু খেয়ে চোখে বুলিয়ে দেওয়া। হযরত আবু বকর রা. নাকি এই আমল করতেন এবং বর্ণনা করতেন যে, যে ব্যক্তি তা করবে তার জন্য রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর শাফায়াত ওয়াজিব হয়ে যাবে। জানতে চাই এই হাদীসটি সহীহ কি না?

উত্তর

প্রশ্নোক্ত আমলটি এবং এ সম্পর্কিত বর্ণনা মূলত ‘মুসনাদে দাইলামী’তে রয়েছে। প্রখ্যাত হাদীস-বিশারদগণ বর্ণনাটি ভিত্তিহীন ও জাল বলেছেন। হাফেয সাখাভী রাহ. বলেন, এটি প্রমাণিত নয়। (আলমাকাসিদুল হাসানাহ ৪৫০-৪৫৯)

আল্লামা জালালুদ্দীন সুয়ূতী রাহ. বলেন, মুআজ্জিনের শাহাদাতে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর নাম শুনে আঙ্গুলে চুমু খাওয়া এবং তা চোখে বুলিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে যাতগুলো রেওয়ায়াত বর্ণিত হয়েছে সবগুলোই বানোয়াট। (তাইসীরুল মাকাল হাদীস : ১২৩; রাহে সুন্নাত ২৪৩)

আল্লামা লখনভী রাহ. বলেন, সত্যি কথা হল, ইকামত কিংবা অন্য কোথাও রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর নাম শ্রবণ করা মাত্রই নখে চুমু খাওয়া (এবং তা চোখে বুলিয়ে দেওয়া) সম্পর্কে কোনো সহীহ হাদীস বা সাহাবীর কোনো আছর বা আমল বর্ণিত হয়নি। যে তা দাবি করবে সে চরম মিথ্যাবাদী। আর এটি একটি নিকৃষ্টতম বিদআত। শরীয়তের কিতাবসমূহে যার কোনো ভিত্তি নেই। (আসসিয়ায়াহ ২/৪৬)

আরো দেখুন : আলমাসনূ ১৬৮-১৭০; তাযকিরাতুল মাওজূআত ৩৪; কাশফুল খাফা ২/২০৬-২০৭; প্রচলিত জাল হাদীস

উত্তর দিয়েছেন : মাসিক আল-কাওসার

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.