আমাদের গ্রামের এক ব্যক্তি চাল ব্যবসায়ী। দীর্ঘদিন যাবৎ তার এ…

প্রশ্ন

আমাদের গ্রামের এক ব্যক্তি চাল ব্যবসায়ী। দীর্ঘদিন যাবৎ তার এ ব্যবসা। গত বছর সে ব্যবসায় বড় ধরনের লস খায়। যার কারণে সে অনেক ঋণী হয়ে পড়ে এবং অনেকটাই নিঃস্ব হয়ে পড়ে। পাওনাদারদের টাকা পরিশোধ করার মতো তার কাছে কোনো ব্যবস্থা নেই। এ অবস্থা দেখে তার এক ভাই তাকে সহায়তা করার জন্য সোনালী ব্যাংকে একটি ফিক্সড ডিপোজিট একাউন্ট খুলে। উদ্দেশ্য হল, ডিপেজিট থেকে যে মুনাফা আসবে তার পুরোটাই তাকে দিয়ে দিবে। প্রশ্ন হল উক্ত উদ্দেশ্যে তার এ ডিপোজিট খোলা জায়েয হয়েছে কি?

উত্তর

প্রশ্নে বর্ণিত ফিক্সড ডিপোজিট একাউন্টটি সুদভিত্তিক। এই একাউন্টের আয় সম্পূর্ণ হারাম। এ ধরনের একাউন্ট করলে একে তো সুদী চুক্তি করার গুনাহ হবে। আর অতিরিক্ত গ্রহণ করলে সুদ গ্রহণেরও গুনাহ হবে। এ টাকা নিজে ভোগ না করলেও যেহেতু মূল চুক্তিটি সুদী। তাই ঋণগ্রস্ত ব্যক্তির ঋণ পরিশোধে সহায়তা করার উদ্দেশ্যেও এই একাউন্ট খোলা জায়েয হবে না।

সতুরাং ঋণগ্রস্ত বা দুস্থ-অসহায়কে সহায়তা করার জন্যও এ ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া যাবে না। বরং শরীয়তসম্মত কোনো পন্থা অবলম্বন করতে হবে। যেমন দীর্ঘ মেয়াদের জন্য সুদমুক্ত কর্জে হাসান দেওয়া, দান-সদকা করা, যাকাত ইত্যাদির মাধ্যমে সহায়তা করা ইত্যাদি।

-সহীহ মুসলিম, হাদীস : ১৫৯৮; বুহুস ফী কাযায়া ফিকহিয়্যাহ মুআসিরা ১/৩৪২

উত্তর দিয়েছেন : মাসিক আল-কাওসার

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.