আল জমেয়া আল ইসলমিয়া পটিয়ার লাইব্রেরী

বহু দুর্লভ গ্রন্থের সমাহার এতে রয়েছে। আমি প্রথম যখন এখানে আসি, হাজারো রকমের কিতাব দেখে ব্যাকুল হয়ে পড়ি। ক্ষুধার্থ মানুষ হঠাৎ অনেক খাবার পেলে যা করে। লাইব্রেরী ভবনের ছবিটি পেয়ে আজ খুব স্মৃতিকাতর হয়ে উঠলাম। দুজন ব্যক্তির স্নেহের পরশ বেশি অনুভব করছি, একজন মাওলানা রহমত উল্লাহ সাহেব যিনি পরম য্ত্ন ও কঠোর শৃঙখলায় লাইব্রেরিকে সমৃদ্ধ করেছেন। লাইব্রেরী সাইন্স না পড়েও বড় একটি লাইব্রেরী পরিচালনা করেছেন সুচারু রূপে।আমাকে সময়ের বাইরেও ঘন্টার পর ঘন্টা লাইব্রেরীতে বিচরণের সুযোগ করে দিয়েছিলেন। আল্লাহ তাকে সুস্বাস্থ্য দান করুন। জ্ঞান অর্জনের নিরবচ্ছি্ন অবারিত সে সুযোগগুলো বার বার ফিরে পেতে ইচ্ছে করে!! দ্বিতীয় জন আমার জীবনের অন্যতম রাহবর (গাইড) শায়খ আল্লমা হারুণ ইসলামাবাদী (র)। তার স্মৃতি বিজড়িত এ ভবনটি দেখে দোয়া করছি আল্লাহ যেন তাকে জান্নাতের উঁচু মর্যাদা দান করেন।

মাওলানা মাহমুদুল হাসান আযহারী।

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Pin It on Pinterest