কওমী মাদরাসার কিছু সমস্যা: উত্তরণের পথ

কওমী মাদরাসার সমস্যা নানামুখী৷ সবগুলো মাদরাসা মিলে একটি বেসরকারি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান৷ এই সেবা শিক্ষার৷ দীনি সেবার৷ পৃথিবীর সবচে ভালো এনজিও কওমী মাদরাসা৷

কওমী মাদরাসার শত বর্ষের আগের সাথে মিলালে চলবে না৷ আজকের সমস্যা দেখতে হবে৷ কওমী মাদরাসায় কোনো রাজনৈতিক দলের কর্মকান্ড নেই কিন্তু রাজনৈতিক লোকগুলো কওমী মাদরাসাগুলো পরিচালনা করে৷ উস্তাযগণ নিজের সুবিধার জন্য সেই রাজনৈতিক লোকদের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হয়৷ যে যখন ক্ষমতায় সে তখন মাদরাসার নিয়ন্ত্রক৷

শুধু কওমী মাদরাসা নয়, ওয়াজ মাহফিলেরও একই অবস্থা৷ সাধারণ মানুষ এখন ওয়াজের আয়োজক এবং চান্দার জন্য রাস্তায় গাড়ি আটকায়৷

দীনি মেজাজে মাদরাসা চলতো আগে। কিন্তু এখন কঠিন হয়ে যাচ্ছে দিন দিন৷ এই সমস্যা একদিনে তৈয়ার হয়নি৷ সমস্যা সহসায় হবে বলে মনে হয় না৷ কমিটিকে ইলমে দীন ও আহলে ইলমের মর্যদা সম্পর্কে ধারণা দিতে হবে৷ মাদরাসায় যে রাজনীতির জায়গা নয় তাও জানাতে হবে৷

দীনি মেজাজ তৈয়ার না করতে পারলে এই সমস্যা থেকে উত্তরণ কঠিন৷ ওদিকে মাদরাসার শিক্ষকদের আদর্শ শিক্ষকের গুণাবলী অর্জন করতে হবে৷ ফারেগ হয়েই শিক্ষক হলে সমস্যা সৃষ্টি হয়৷ তারবিয়াহ’র চরম অভাব৷

পুরো শিক্ষক সমাজ একটি পরিবার৷ কিন্তু এখন এক পরিবার নেই৷ রাজনৈতিক দলের মতো দলান্ধতা৷ দলাদলি৷ গ্রুপিং৷ মর্যদার লড়াই৷ লড়াই লড়াই খেলতে খেলতে মাদরাসার ভাঙ্গন৷

এইসব সমস্যার অন্যতম মাদরাসার কোনো নীতিমালা বা মানানসই গঠনতন্ত্র নেই৷ গঠনতন্ত্র থাকলেও তাতে কার কী দায়িত্ব তার বিবরণ নেই৷

বিবরণ থাকলেও একপেশে৷ কমিটি বনাম শিক্ষকের লড়াইয়ে ক্ষতি হয় মাদরাসার৷ কমিটি বনাম কমিটির লড়াইয়ে ক্ষতি হয় মাদরাসার৷ শিক্ষক বনাম শিক্ষকের লড়াইয়ে ক্ষতি হয় মাদরাসা৷ মাদরাসার সম্পদের আমানতদারি না থাকলে নাজিল হয় গজব৷ এই জামানায় আমানতদারিরও সংকট৷

কুধারণা, ভুল ধারনা, ভুল তথ্য প্রচার মাদরাসার অবক্ষয়ের আরেক কারণ৷
ইতাআতের সমস্যা৷ সমস্যা স্বৈরাচারীরও৷ স্বেচ্ছাচারিতারও।

মাদরাসার বিষয়ে ইসলামী রাষ্ট্র পরিচালনায় শাসকের যে গুণাবলী সেইসব গুণের সমাহার থাকতে হয় পরিচালনা পরিষদের৷ মাদরাসার মুহতামিমকে হতে হয় আহলে ইলম, আহলে রায় এবং তাকওয়ালা৷ কিন্তু কালেকশন করতে পারা এখন হয়েছে কওমী মাদরাসার মুহতামিমের প্রধান গুণ৷

শিক্ষার মান বাড়াতে কওমী মাদরাসার সিলেবাসে বিন্যাস করতে হবে৷ সংস্কার করতে হবে৷ সাধারণ শিক্ষার সঙ্গে প্রয়োজনীয় সমন্বয় ঘটাতে হবে৷

অন্যথায় সচেতন অভিভাবকগণ সন্তানকে নিয়ে বিপাকে পড়বে৷ সাধারণ শিক্ষায় চলে যাবে মেধাবীরা৷ বাকি কিছু মেধাহীনরা থাকবে মাদরাসায়৷

মাদরাসায় মেধা বিকাশে বহুমুখী উদ্যোগ নিতে হবে৷ মেধাবীদেরকে পরিচর্যা করে দেশের সম্পদ হিসেবে গড়তে হবে৷ দীনের সম্পদ হিসেবে তৈয়ার করতে হবে৷ মেধা একটি নিয়ামত৷ এই নিয়ামতের অবহেলা করা যাবে না৷

কওমী মাদরাসার আর্থিক সমস্যা একটি জটিল সমস্যা৷ অর্থ বণ্টন পদ্ধতিও অগোছালো৷ এটি সুষম করতে হবে৷ ইনসাফপূর্ণ করতে হবে৷ এর জন্য পৃথক নীতিমালা তৈয়ার করতে হবে এবং তা পালন করতে হবে৷ স্থায়ী অর্থের আয়োজন করতে হবে৷ দীনদারদের নেগরানি থাকতে হবে তাতে৷

কওমীতে আরেকটি সমস্যা যুগের চাহিদা উপলব্ধির ব্যর্থতা৷ যুগের দাবি বোঝতে না পারা৷ সময়ের স্পন্দন উপলব্ধি করতে না পারা৷ যেখানে মাদরাসা শিক্ষাকে সময়ের আগে চলার কথা সেখানে পিছিয়ে থাকে শতবর্ষ৷

ফেরকাবাজি করে এ সময়ে কোনো লাভ নেই৷ ইহুদী নাসারা চক্রের ষড়যন্ত্র হলো ফেরকাবাজি৷ মাজহাবি লড়াই৷ একটি শিক্ষাব্যবস্থার এই লক্ষ্য হতেই পারে না৷ অনর্থক সময় ও যোগ্যতার অপচয়৷

নির্মাণমূলক কাজে লক্ষ্য নির্ধারণ করতে হবে৷
সমস্যা আরও অনেক৷ এক লেখায় তা সম্ভব নয়৷ কওমীপন্থীরা সমস্যা চিহ্নত করতে পারে না এটিও একটি সমস্যা৷ সমালোচনাকে ভয় করে৷ ভয় করে আত্মসমালোচনাও৷ এতে উন্নতি হবে না৷ অবক্ষয়ের শিকার হবে৷

ওয়াজ মাহফিলে লাখ লাখ মানুষ হলেই কওমীর জাগরণ হয়েছে সে ধারণা যথাযথ নয়৷ সেই মাহফিলগুলো এখন হাটবাজারে রুপান্তর হচ্ছে৷ উৎসব প্রায়৷ বক্তাদের হালত না বলা ভালো৷ কেউ কেউ ভালো এবং নাসেহ৷ দাঈ৷ কারবারি ওয়ায়েজে সয়লাব মাহফিলগুলো৷

কওমীর সমস্যা সমাধান দেওবন্দের পুরনো দিনের আদর্শে ফিরে যাওয়া৷ দারুল উলুমের আধুনিক সুন্দর বিষয়গুলোর অনুসরণ করা৷

উত্তরণের আরেক পথ কওমী মাদরাসাগুলোকে খেলাফতে রাশেদার পথে চলতে হবে এবং যুগের চাহিদার যোগান দিতে হবে দীনি মেযাজ লালন করে৷ দীনি পরিবেশে৷

একুশ শতকে বিশাল সম্ভাবনা কওমী মাদরাসার৷ তবে সময়কে ধারণ করে এগুতে হবে৷

লাবীব আব্দুল্লাহ
লেখক, গবেষক, শিক্ষাবিদ

পরিচালক, ইবনে খালদুন ইনস্টিটিউট

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Pin It on Pinterest