কওমী মাদরাসার বিরুদ্ধে বাংলা ট্রিবিউনের পরিকল্পিত বিষোধাগার: সতর্কবাণী দিলেন আমীরে হেফাজত!

বেশ কিছুদিন ধরে বাংলা ট্রিবিউন নামক একটি অনলাইন পত্রিকা বাংলাদেশের সমস্ত কওমী মাদরাসা ও বরেণ্য আলেম-উলামাদের নিয়ে চরম প্রতিহিংসা ও নির্লজ্জভাবে পরিকল্পিত বিষোধাগারমূলক প্রতিবেদন ছাপিয়ে আসছে।

গতকাল ২৬ জানুয়ারি ২০১৮ রোজ জুমাবার সালমান তারেক শাকিল নামের এক প্রতিবেদক `কওমী শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য:শীর্ষে হাটহাজারী মাদরাসা’ শার্ষক চরম মিথ্যাচার ও বিষোধাগারমূলক একটি প্রতিবেদন ছেপেছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এধরণের মিথ্যাচারের নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে। আগামীতে এমন দুঃসাহস দেখানোর স্পর্ধা দেখালে হেফাজতে ইসলাম কঠোর ব্যবস্থা নিবে বলে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সম্মানিত আমীরে মুহতারাম শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

তিনি বলেছেন, বাংলা ট্রিবিউন পত্রিকাটির স্পর্ধা সীমালঙ্ঘন করতে যাচ্ছে। দুরভিসন্ধিমূলক বারংবার জঘন্য মিথ্যাচার ও কওমী মাদরাসা এবং আলেম উলামাদের নিয়ে হোলি খেলায় মেতে উঠেছে। এ ব্যাপারে আলেমসমাজকে চৌকান্না থাকার পরামর্শ দিয়েছেন আমীরে হেফাজত।

বাংলা ট্রিবিউন কাদের এজেন্ডা বাস্তবায়নে কওমী মাদরাসার বিরুদ্ধে এমন সস্তা গল্পের অবতারণা করে যাচ্ছে, হেফাজতে ইসলাম এর মুখোশ উম্মোচনে বদ্ধপরিকর। তারা এই রিপোর্টে ভারতের ঐতিহাসিক দারুল উলূম দেওবন্দের বিরুদ্ধেও আঘাত করতে কুন্ঠাবোধ করেনি।

কওমী মাদরাসার বেতন বৈষম্যভেদ্য সম্পর্কে সালমান তারেক এমনভাবে লেখেছেন যেন কওমী মাদরাসার বেতনগুলো তারা দু’জন মিলে দিচ্ছেন। কওমী মাদরাসাতে প্রত্যেকে যার যার যোগ্যতা মতো বেতন পায়। তাছাড়াও আলেমরা আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের লক্ষ্যেই কওমী মাদরাসায় খেদমত আঞ্জাম দিয়ে থাকেন। রিযিকের মালিক একমাত্র আল্লাহ তা’আলাই। কার এজেন্ডা বাস্তবায়নে কওমী মাদরাসার পেছনে পড়েছেন বলে প্রশ্ন রেখেছেন সংশ্লিষ্টদের প্রতি।

কওমী মাদরাসা নিচক জনগনণের দান-অনুদানে পরিচালিত। সরকারী কোন অনুদান এখানে নেই। তবুও নিজের প্রচেষ্টায় প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলে দেশ, জাতি ও ইসলামের যে খেদমত করে যাচ্ছেন তা নযিরবিহীন। নাস্তিক্যবাদী, বেইমান, মুরতাদ ও ইসলাম বিদ্ধেষী শকুনদের দৃষ্টি সর্বদা কওমী মাদরাসার উপর। শত বাতিলের চোখ রাঙ্গানীকে উপেক্ষা করে কওমী মাদরাসা এখনো জ্ঞানের মশাল জ্বালিয়ে সর্বত্র আলো বিচ্ছুরণ করে যাচ্ছে।

কিন্তু স্পর্ধা দেখিয়ে বাংলা ট্রিবিউন ও সালমান শাকিল কওমী মাদরাসা ও আলেম-উলামার বিরুদ্ধে জঘন্য মিথ্যাচার করে যাচ্ছে। বেশ কিছুদিন আগে থেকে এসব ষড়যন্ত্র চালিয়ে আসছে।

তাছাড়াও হাটহাজারী মাদরাসা বেতন বৈষম্যতার শীর্ষে নামক লেখা ও আমীরে হেফাজতের বেতন এক লক্ষ টাকা ইত্যাদি উদ্ভট কথার ও তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন আমীরে হেফাজত।

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.