ক) আমরা জানি যে, ব্যভিচার প্রমাণ হওয়ার জন্য চারজন প্রত্যক্ষদর্শী…

প্রশ্ন

ক) আমরা জানি যে, ব্যভিচার প্রমাণ হওয়ার জন্য চারজন প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তির সাক্ষ্য প্রয়োজন। কিন্তু একজন ব্যক্তি এমন দৃশ্য দেখে মোবাইলে তা ভিডিও করেছে। ফলে অপকর্মটা অনেকেই দেখতে পাচ্ছে। এমতাবস্থায় কি তাদের ব্যভিচার প্রমাণ হবে, আদালতের উপর ভিত্তি করে। তাদের উপর কি হদ কায়েম করতে পারবে?

খ) বর্তমানে কম্পিউটারে ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে এমন সুবিধা গ্রহণ করা যায় যে, দুজন দু প্রান্তে থেকে একে অন্যকে সুস্পষ্ট দেখতে পায়। প্রশ্ন হল, বর-কনে ও সাক্ষীগণ যদি উপস্থিত থেকে দুই প্রান্তে বিয়ে পড়ানো হয় তাহলে এ বিয়ের হুকুম কী? বিয়ে কি সম্পন্ন হবে? এখানে তো স্পষ্টভাবে সবাইকে দেখা যাচ্ছে।

উত্তর

(ক) একজন দেখে মোবাইলে ভিডিও করে নিলেও তা দ্বারা হদের শাস্তি দেওয়া যাবে না। কেননা, এ শাস্তি প্রয়োগের শর্ত পাওয়া যায়নি। তবে ক্ষেত্রবিশেষে বিচারক এ ধরনের প্রমাণ দ্বারা তাযীর (লঘু শাস্তি) প্রয়োগ করতে পারবেন। উল্লেখ্য যে, হদ, রজম ইত্যাদি একমাত্র ইসলামী রাষ্ট্রের আদালতই দিতে পারে।

-সূরা নিসা : ১৫; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ২/১৪৩; বাদায়েউস সানায়ে ৫/৫০৯; আদ্দুররুল মুখতার ৪/৭৩

(খ) না, এভাবে বিয়ে সহীহ হবে না। বিয়ের জন্য সাক্ষীদের সরাসরি সম্মুখে তাদেরকে শুনিয়ে ইজাব-কবুল হওয়া জরুরি। তাই প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে পাত্র বা পাত্রী তার পক্ষ থেকে বিবাহ সম্পন্ন করার জন্য কাউকে প্রতিনিধি বানাবে। ঐ প্রতিনিধি অপর পক্ষকে নিয়ে দুই সাক্ষীর সামনে বিবাহ সম্পন্ন করবে।

-ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/২৯৪, ২৬৭; বাদায়েউস সানায়ে ২/৫২৭; আদ্দুররুল মুখতার ৩/২১

উত্তর দিয়েছেন : মাসিক আল-কাওসার

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Pin It on Pinterest