জনৈকা মহিলার যিলহজ্ব মাসের তিন তারিখে মাসিক শুরু হয়েছে। মোট…

প্রশ্ন

জনৈকা মহিলার যিলহজ্ব মাসের তিন তারিখে মাসিক শুরু হয়েছে। মোট দশ দিন মাসিক থাকে। এ অবস্থায় তার হজ্বে যাওয়ার ফ্লাইটের তারিখও এসে গেছে। এখন সে কীভাবে হজ্ব আদায় করবে?

উত্তর

উক্ত মহিলা গোসল করে ইফরাদ হজ্বের ইহরাম বাঁধবে। তবে ইহরামের নামায পড়বে না এবং কোনো প্রকার তাওয়াফ করবে না। আট তারিখের আগে মাসিক বন্ধ হয়ে গেলে মিনায় যাওয়ার আগে তাওয়াফে কুদূম করে নিবে। কিন্তু যদি তখনও বন্ধ না হয় তবে এ অবস্থায় মিনায় চলে যাবে এবং হজ্বের সকল আমল যথাযথভাবে করতে থাকবে। ১২ যিলহজ্ব সূর্যাস্তের আগে যদি এতটুকু পূর্বে হায়েয বন্ধ হয়ে যায় যে, গোসল করে তাওয়াফের চার চক্কর দিতে পারবে তাহলে ঐ সময়ই তাওয়াফ করা ওয়াজিব। যদি এতটুকু সময় পাওয়ার পরও সে সময় তাওয়াফ না করে তাহলে তার উপর দম (পশু কুরবানী করা) ওয়াজিব হবে। কিন্তু যদি এতটুকু পূর্বে বন্ধ না হয় তাহলে পবিত্র হওয়ার পর তাওয়াফে যিয়ারত করবে। এক্ষেত্রে বিলম্বে আদায় করার কারনে দম ওয়াজিব হবে না।

সহীহ বুখারী ১/৪৪; সহীহ মুসলিম ১/৩৮৯; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ২/৪৭১; আদ্দুররুল মুখতার ২/৫১৯

উত্তর দিয়েছেন : মাসিক আল-কাওসার

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.