জাগ্রত কবি মুহিব খানের জাগরনী সংঙ্গীত

………………………………
মোল্লারা সব জাগো…!!!
জুব্বা খুলে নাওরে তুলে বারুদমাখা পাঞ্জাবি,
শক্ত করে পাগড়ি বাধো থাকনা পড়ে গোলটুপি।
পান চিবানোর স্বভাব ছেড়ে হাড্ডি চিবাও দুশমনের,
ঝড়-তুফানে পড়বে মারা মৌলভী সব খোশমনের।
সুরমা দেবার কী প্রয়োজন! থাকনা দু’চোখ রক্তে লাল!
ক্ষিপ্ত বাঘের দৃষ্টি দেখে দৌড়ে পালাক ভেড়ার পাল।
উপচে পড়া দাড়ির ফাকে গোফটা না হয় থাক ফুলে,
ঝাকড়া চুলের বাবরী দেখে সিংহ পালাক জঙ্গলে।
রুমাল দিয়ে কান ঢেকে আর ক’দিন রবে শান্তিতে,
বিশ্বটা যে আজ যাচ্ছে ডুবে গোমরাহী আর ভ্রান্তিতে।
গামছা ফেলে রুমাল ফেলে হাত রাখ ভাই বন্দুকে,
মারের ভয়ে মরার আগেই মরতে হবে কোন দুঃখ্যে?
ডাক দিয়ে যাই মৌলভীদের ঘুম ভাঙ্গানোর গাইরে গান,
সব গোড়ামী ছাড়তে হবে থাকতে হবে মুক্ত প্রাণ।
ঘরকুনোদের ঠাই হবে না ময়দানে বা রাজপথে,
আজ থেকে তাই জাগতে হবে সবাই মিলে একসাথে।
বাঁচার মত বাঁচতে হলে ঝাণ্ডা উড়াও বিপ্লবের,
বিশ্বজুড়ে নতুন করে মৌলভীরাই জাগবে ফের।
এই শহীদ-গাজীর বাংলা ছেড়ে নাস্তিকেরা সব ভাগো,
আজ দিন বদলের দিন এসেছে মোল্লারা সবে জাগো জাগো…….

Pin It on Pinterest

Share This