মুহতারাম, আমার বাবা এবং বড় ভাই একসাথে ঢাকা যাওয়ার পথে…

প্রশ্ন

মুহতারাম, আমার বাবা এবং বড় ভাই একসাথে ঢাকা যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় উভয়েই ইন্তেকাল করেন। আমরা গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করি। আমার বড় ভাইয়ের একজন ছেলে ও তিনজন মেয়ে রয়েছে। জানার বিষয় হল, আমার বড় ভাই কি আমার বাবার সম্পত্তি থেকে উত্তরাধিকার সূত্রে কোন অংশ পাবে। যা আমরা তার সন্তানদের মাঝে বণ্টন করে দিতে পারি? কেননা এমন তো হতে পারে বাবার মৃত্যু ভাইয়ের মৃত্যুর আগেই হয়েছে। তাছাড়া এক ভাই বললেন, বর্তমানে মেডিকেল টেষ্ট করার মাধ্যমে মৃত্যুর সময়কাল জানা যায়।

উত্তর

প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে যেহেতু কার মৃত্যু আগে হয়েছে তা সুনিশ্চিতভাবে জানা নেই তাই এক্ষেত্রে শরীয়াতের বিধান হল কেউ কারো থেকে মীরাছ পাবে না। অতএব আপনার ঐ মৃত ভাই বাবা থেকে মীরাছ পাবে না।

এক বর্ণনায় এসেছে,

عَنْ عَطَاءٍ، عَنِ ابْنِ عَبَّاسٍ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُمَا أَنَّهُ كَانَ لَا يُوَرِّثُ الْمَيِّتَ مِنَ الْمَيِّتِ إِذَا لَمْ يُعْرَفْ أَيُّهُمَا مَاتَ قَبْلَ صَاحِبِهِ .

আতা রহ. বলেন, দুই ওয়ারিশের কে আগে মারা গেছে তা জানা না গেলে হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস রা. উভয়ের মাঝে উত্তরাধিকার সূত্রে সম্পদ বণ্টন করতেন না। -মুস্তাদরাকে হাকেম, হাদীস ৮০৭৬

আর মেডিকেল টেস্ট এখন পর্যন্ত ঐ মানে পৌঁছায়নি যার মাধ্যমে এ ধরনের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়। কোনো কোনো সময় একই রোগের টেস্ট পৃথক পৃথক ল্যাবে করালে ফলাফলে ভিন্নতাও দেখা যায়। তাই এর উপর ভিত্তি করে কার মৃত্যু আগে হয়েছে তা নিশ্চত হওয়া যায় না।

উল্লেখ্য যে, আপনার মৃত ভাই যদিও বাবার মীরাস পাবে না কিন্তু প্রাপ্তবয়স্ক ওয়ারিশগণ মিলে তার স্ত্রী-সন্তানদেরকে সম্পদের হিস্যা দিতে পারবে। এবং এভাবে দিলে তা উত্তম কাজ হবে।

-আলমাবসূত, সারাখসী ৩০/২৭; আলমুহীতুল বুরহানী ২৩/৪০২; তাবয়ীনুল হাকায়েক ৭/৪৯৩; আদ্দুররুল মুখতার ৬/৭৯৯

উত্তর দিয়েছেন : মাসিক আল-কাওসার

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.