রমযানে বিতর নামাযে মাসবুক হলে করনীয় ৷

0
1
প্রশ্ন
হুজুর গতকাল তারাবীর নামায বিশ রাকাত শেষ হওয়ার পর আমার অযু ছুটে যায়৷ অতপর অযু করে আসতে আসতে এক রাকাত শেষ হয়ে যায়৷ ইমাম সালাম ফিরানোর পর অবশিষ্ট রাকাত আদায় করার সময় হাতও উঠাইনি৷ দুআ কুনুতও পড়েনি৷ তবে ইমামের সাথে দুআ কুনুত পড়ে নিয়েছি৷ জানার বিষয় হল, আমার নামায কি হয়েছে? রমযানে বিতরের জামাতে মাসবুক হলে করণীয় কি? শেষ রাকাতে দুআ কনুতের পরে শরীক হলে দুআ কুনূত পড়তে হবে কি? বিস্তারিত জানালে উপকৃত হব।
উত্তর
প্রশ্নে বর্নিত সূরতে আপনার নামায সহীহ হয়েছে ৷ বিতর নামাযের জামাতে দ্বিতীয় বা তৃতীয় রাকাতে সাথে শরিক হলে ইমামের সাথেই দুআ কুনূত পড়ে নিবে। এরপর ছুটে যাওয়া নামায স্বাভাবিক নিয়মে আদায় করবে। অর্থাৎ অন্য নামাযে মাসবুক হলে যেভাবে আদায় করা হয় সেভাবেই আদায় করবে। এমনিভাবে তৃতীয় রাকাতের রুকুতে শরিক হলে ঐ রাকাতের দুআ কুনূত পেয়েছে বলে ধর্তব্য হবে। তাই এক্ষেত্রেও পরে আর দুআ কুনূত পড়তে হবে না।
কিন্তু যদি শেষ রাকাতের রুকু না পায় তাহলে ইমামের সালামের পর দাঁড়িয়ে সাধারণ নিয়মে তিন রাকাত বিতর পড়বে এবং তৃতীয় রাকাতে দুআ কুনূত পড়বে।
-ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/১১১; শরহুল মুনইয়া ৪২১; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ২/৩৪৫ ৷
উত্তর প্রদানে মুফতী মেরাজ তাহসীন মুফতীঃ জামিয়া দারুল উলুম দেবগ্রাম ব্রাহ্মণবাড়িয়া ৷

উত্তর দিয়েছেন : মুফতি মেরাজ তাহসিন

LEAVE A REPLY

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.