স্ত্রী সহবাস করে গোসল না করে সেহরী খাওয়া ও সেহরীর পর স্ত্রী সহবাস করা ৷

প্রশ্ন
হযরত স্ত্রী সহবাসের পর গোসল না করে কি সেহরী খাওয়া যাবে? আর সেহরী খাওয়ার পর যদি আযানের পুর্বে স্ত্রী সহবাস করা হয় তাহলে কি রোযার কোনো ক্ষতি হবে? অনুগ্রহপুর্বক জানাবেন ৷
উত্তর
ফরজ গোসল অবস্থায় পানাহার করা বৈধ ৷ তবে অযু করে নেয়া সুন্নত ৷ অতএব স্ত্রী সহবাসের পর গোসল না করে সেহরী খাওয়া যাবে ৷ তবে উত্তম হল, সময় থাকলে আগে গোসল করে নেয়া, তারপর সেহরী খাওয়া ৷
আর রমযানে সুবহে সাদেকের পুর্ব পর্যন্ত খানাপীনা, স্ত্রী-সহবাস সবকিছু বৈধ। যদিও সেহরী খাওয়ার পর হয়। তবে অবশ্যই নামাযের আগে গোসল করে মসজিদে জামাতের সহিত নামায আদায় করতে হবে ৷
-মেশকাত শরীফ পৃষ্ঠা ১৭৪; ফতোয়ায়ে দারুল উলুম। ৬/৪৯৬; মাসায়েলে রোজা ৫৭৷ উত্তর প্রদানে মুফতী মেরাজ তাহসীন মুফতীঃ জামিয়া দারুল উলুম দেবগ্রাম ব্রাহ্মণবাড়িয়া ৷

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.