♪♪ মাজারের জমজমাট ব্যবসা ♪♪পুরোটা পড়েন…..

একবার এক ব্যাক্তি খুব অভাবে পড়লো। কোন পথ না পেয়ে এক পীর ধরলো। পীর তার এক মুরিদকে একটা গাধা উপহার
দিলেন। মুরিদতো মহা খুশি। তিনি খুব যত্নসহকারে গাধাটিকে পালতে লাগলেন।

গাধাটিকে দিয়ে সে বোঝা বহন করাতো আর ভালো রোজগারই করতো।

কিন্তু একদিন বাজার থেকে আশার পথে গাধাটি মারা গেলো । মুরিদতো চিন্তায়
পড়ে গেলেন এটা তার ওস্তাদের গাধা এভাবে রাখলে গন্ধে মানুষের কষ্ট হবে। তাই তিনি গাধাটিকে কবর দিয়ে এর পাশে বসে কাঁদতে লাগলেন।

তো ওখান দিয়ে যেই যায় লোকটিকে কাঁদতে দেখে টাকা দেয়। তখনি মুরিদের মাথায় এক বুদ্ধি এলো সে কবরটিকে লাল
কাপড় দিয়ে ঢেকে দিলো আর একটা সাইনবোর্ড ঝুলালো এবং তাতে লিখলোঃ

“গাধা শাহ”
-এর মাজার।

অল্প কিছ দিনে মধ্যেই মাজার বেশ জমজমাট হয়ে গেলো। হাজার হাজার
মুরিদের আর্বিভাব ঘটলো। নতুন মাজারের কথা একদিন তার পীর জানতে পারলো এবং তাকে ডেকে পাঠাল হাজার হোক পীরের কাছে তো আর মিথ্যা বলা যায় না। তাই তিনি সব খুলে বললেন। এই ঘটনা শুনে তার
.
. .
.
.
পীর বললো চিন্তা করিস
না তোর
ওখানে যার
মাজার আমার এখানে তার
মায়ের মাজার॥

কি বুঝলেন ???
এই হলো দেশের অবস্থা! আজ কিছু ভন্ড মাজার পুজারী, বেদাতীদের কারণে দেশের হক্কানী ওলামায়েকরাম ও আল্লাহর ওলীরাও সমালোচনার স্বীকার হচ্ছেন।

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.