অনুবাদকৃত বইসমুহ

পরিচ্ছেদ

পরিচ্ছেদ আল্লাহ তাআলা বলেন » অর্থাৎ — আল্লাহই উর্ধ্বদেশে অড়াকম্পোমণ্ডলী স্থাপন করেছেন স্তম্ভ ন্য৩া৩ তো ৷র৷ তা দেখতে পাও ৷ তারপর তিনি আরশে সমাসীন হন এবং সুর্য ও চন্দ্রকে নিয়ম ধীন করেন ; প্ৰতোক নির্দিষ্টকাল পর্যত অবের্তন করে ৷ তিনি সকল বিষয় নিয়ন্ত্রণ করেন এবং নিদর্শনসমুহ বিশদভাবে বর্ণনা করেন, যাতে তোমরা তাদের প্রতিপালকের সঙ্গে সাক্ষাৎ …

পরিচ্ছেদ Read More »

সাগর ও নদ-নদী

সাগর ও নদ-নদী আল্লহ্ ত আলা বলেনং : অর্থাৎ-তিনিই সমুদ্রকে অধীন করেছেন যাতে তোমরা তা থেকে তাজা মাছ খেতে পায় এবং যাতে তা থেকে আহরণ করতে পার রত্নাবলী, যা তোমরা ভুষণরুপে পরতে পার এবং তোমরা দেখতে পাও , তার বুক চিরে নৌযান চলাচল করে এবং তা এ জন্য যে , তোমরা যেন তবে অনুগ্রহ সন্ধান …

সাগর ও নদ-নদী Read More »

সাত যমীন প্রসঙ্গ

সাত যমীন প্রসঙ্গ অর্থাৎ-আল্লাহই সৃষ্টি করেছেন সাত আকাশ এবং পৃথিবীও, তাদের অনুরুপভারে তাদের মধ্যে নেমে আসে তীর নির্দেশ, ফলে তোমরা বুঝতে পায় যে, আল্লাহ সর্ববিষয়ে সর্বশক্তিমান , এবং জ্ঞানে আল্লাহ সব কিছুকে পরিবেষ্টন করে আছেন ৷ (৬৫ : ১২) বুখারী (ব) বর্ণনা করেন যে, আবু সালামা ইবন আবদুর রহমান (রা) ও কতিপয় লোকের মধ্যে একটি …

সাত যমীন প্রসঙ্গ Read More »

আরশ ও কুরসী সৃষ্টির বিবরণ

আর্‌শ ও কুরসী সৃষ্টির বিবরণ আল্লাহ তা’আলা অর্থাৎ তিনি সমুচ্চ মর্যাদার অধিকারী আরশের অধিপতি’ ৷ (৪ঃ১৫) অর্থাৎ মহিমান্বিত আল্লাহ, যিনি প্রকৃত মালিক তিনি ব্যতীত কোন ইলাহ নেই ৷ সম্মানিত আরশের তিনি অধিপতি ৷ (২৩০ঃ ১১৬) অর্থাৎ তুমি জিজ্ঞেস কর, কে সাত আকাশ এবং মহা আরশের অধিপতি ? (২৩ঃ ৮৬) অর্থাৎ তিনি ক্ষমাশীল, প্রেমময়, আরশের অধিকারী …

আরশ ও কুরসী সৃষ্টির বিবরণ Read More »

সৃষ্টি জগতের সূচনা

অর্থাৎ—- সকল প্রশংসা মহান আল্লাহর যিনি আদি-অন্ত, ব্যক্ত ও গুপ্ত এবং যিনি সর্ববিষয়ে সম্যক অবহিত ৷ তিনি আদি, তাই তাঁর আগে কিছু নেই ৷ তিনি অস্ত, তাই তাঁর পরে কিছু নেই ৷ তিনি ব্যক্ত, তাই তাঁর উপরে কিছু নেই ৷ তিনি গুপ্ত, তাই তাঁর পেছনে কিছু নেই ৷ তিনি আপন কামালিয়াতের যাবতীয় গুণাবলী অনাদি সহ …

সৃষ্টি জগতের সূচনা Read More »

নবী করীম (সাঃ)-এর ইন্তেকাল হতে কিয়ামত পর্যন্ত সংঘটিতব্য ফিতনা ও তার সংখ্যা সম্পর্কে অভিহিত করণ

হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাঃ থেকে বর্ণিত তিনি বলেন একদা রাসূল সাঃ আমাদের নিয়ে একটু বেলা থাকতেই আসরের নামায আদায় করেন। অতঃপর সূর্য অস্ত ভাষণ দিলেন। উক্ত ভাষণে কিয়ামত পর্যন্ত যা কিছু ঘটবে তার সমস্ত কিছুই বর্ণনা করেন। তাঁর সেই ভাষণটি যারা ভুলে যাওয়ার তারা ভুলে গিয়েছে। [ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ – ১ …

নবী করীম (সাঃ)-এর ইন্তেকাল হতে কিয়ামত পর্যন্ত সংঘটিতব্য ফিতনা ও তার সংখ্যা সম্পর্কে অভিহিত করণ Read More »