Anonymous
  • -2

উম্মুল মুমিনীন হযরত আয়েশা সিদ্দিকা (রা) এর সম্পর্কে

  • -2

আসসালামুয়ালাইকুম,
আশাকরি আল্লাহর অশেষ রহমতে ভালো আছেন।
আমার প্রশ্নটি হল,কিছু ভাই দাবি করে যে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যাদেরকে জান্নাতি বলে ঘোষণা দেন নি তাদেরকে নিশ্চিত জান্নাতি বলা যাবে না।
এক্ষেত্রে আমরা কি উম্মুল মুমিনীন হযরত আয়েশা (রা) কে নিশ্চিত জান্নাতি বলতে পারি? যেহেতু এটি একটি গায়েবি বিষয়।ওনার জান্নাতি হওয়া সম্পর্কিত কোনো হাদিস যদি থাকে তাহলে তা দিলে খুবই উপকৃত হতাম।জাযাকাল্লাহ….

আপনার উত্তর যোগ করুন

উত্তর দিতে লগিন করুন।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

  1. This answer was edited.

    জবাব

    وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته
     بسم الله الرحمن الرحيم
    (০১)
    হাদীস শরীফে এসেছেঃ
    حَدَّثَنَا عَبْدُ بْنُ حُمَيْدٍ، أَخْبَرَنَا عَبْدُ الرَّزَّاقِ، عَنْ عَبْدِ اللَّهِ بْنِ عَمْرِو بْنِ عَلْقَمَةَ الْمَكِّيِّ، عَنِ ابْنِ أَبِي حُسَيْنٍ، عَنِ ابْنِ أَبِي مُلَيْكَةَ، عَنْ عَائِشَةَ، أَنَّ جِبْرِيلَ، جَاءَ بِصُورَتِهَا فِي خِرْقَةِ حَرِيرٍ خَضْرَاءَ إِلَى النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم فَقَالَ ” إِنَّ هَذِهِ زَوْجَتُكَ فِي الدُّنْيَا وَالآخِرَةِ ” . قَالَ هَذَا حَدِيثٌ حَسَنٌ غَرِيبٌ
    আয়িশাহ (রাযিঃ) হতে বর্ণিত আছে যে, জিবরীল (আঃ) একখানা সবুজ রংয়ের রেশমী কাপড়ে তার (‘আয়িশাহর) প্রতিচ্ছবি নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর কাছে নিয়ে এসে বলেন, ইনি দুনিয়া ও আখিরাতে আপনার স্ত্রী।
    সহীহঃ বুখারী (৫১২৫, ৭০১১, ৭০১২), মুসলিম (৭/১৩৪) তিরমিজি ৩৮৩৮
    ইমাম তিরমিজি (আবূ ঈসা) রহঃ বলেন, এ হাদীসটি হাসান গারীব।
    অনেক মুহাদ্দিসিনে কেরামগন উক্ত হাদীসকে ছহীহ বলে আখ্যায়িত করেছেন।
    (০২)
    أن النبي صلى الله عليه وسلم قال لعائشة -رضي الله عنها-: «أَمَا تَرْضَيْنَ أَنْ تَكُونِي زَوْجَتِي فِي الدُّنْيَا وَالْآخِرَةِ؟» قُلْتُ: بَلَى وَاللَّهِ، قَالَ: «فَأَنْتِ زَوْجَتِي فِي الدُّنْيَا وَالْآخِرَةِ»
    রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হযরত আয়িশাকে উদ্দেশ্য করে বললেন, তুমি কি এতে সন্তুষ্ট নও যে, তুমি দুনিয়া ও আখিরাতে আমার স্ত্রী হবে? আমি বললাম, আল্লাহর কসম! অবশ্যই। তিনি বললেন, তুমি দুনিয়া ও আখিরাতে আমার স্ত্রী।
    মুসতাদরাকে হাকিম গ্রন্থে উক্ত হাদীসকে ছহীহ বলা হয়েছে।
    ইমাম যাহাবী রহঃ, শায়েখ আলবানী রহঃ, শুয়াইব আল আরনাউত রহঃ ছহীহ বলেছন।
    ,
    ★উল্লেখিত উভয় হাদীস ছহীহ।

    (আল্লাহ-ই ভালো জানেন)
    ————————
    মুফতী ওলি উল্লাহ
    ইফতা বিভাগ
    Islamic Online Madrasah(IOM)

    • 1