in

ঈদের নামাযের পর প্রচলিত মুসাফাহা মুআনাকা৷

qawmi madrasa books download
qawmi madrasa books download
প্রশ্ন
ঈদের নামায পর দেখা যায় লোকজন একে অপরের সাথে মুসাফাহা, মুয়ানাকা ( কোলাকুলি) করে৷ অথচ একে অপরের সাথে আগেই দেখা সাক্ষাৎ হয়ে গেছে৷ জানার বিষয় হলো, প্রচলিত মুসাফাহা, মুয়ানাকা করা বৈধ কিনা?
উত্তর
একে অপরের সাথে মুসাফাহা, মুআনাকা করা শরীয়তসম্মত৷ এবং সুন্নতও বটে। তবে সবসময় নয়, বরং বিশেষ পদ্ধতি ও বিশেষ অবস্থায়। তা হলো কারো সাথে প্রথম সাক্ষাৎ ও কাউকে বিদায়ের সময়।
তাই প্রচলিত নিয়মানুযায়ী ঈদের নামাযের পর যে মুসাফাহা, মুআনাকা করা হয়, তা শরিয়ত সম্মত নয়। ইহা মাকরুহ ও বিদাআত। তবে কারো সাথে ঈদের নামাযের পর প্রথম সাক্ষাৎ হলে মুসাফাহা মুআনাকা করা জায়েয। কিন্তু বিদাআতের সাথে সাদৃশ্য হয়ে যাওয়ায় না করা উচিত।
ফতওয়ায়ে শামী ৫/৩৩৬; ইমদাদুল ফতোয়া ১/৭০৮; আহসানুল ফতোয়া ২/৩৫৪৷
উত্তপ প্রদানে মুফতী মেরাজ তাহসীন
01756473393

উত্তর দিয়েছেন : মুফতি মেরাজ তাহসিন

What do you think?

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

GIPHY App Key not set. Please check settings

qawmi madrasa books download

ঈদ উপলক্ষে একে অপরকে “ঈদ মোবারাক” বলা৷

qawmi madrasa books download

ঈদের খুতবায় তাকবীর৷