খুলনার বাগেরহাট জেলায় আমার দাদার বাড়ি। সেখানে অনেক বনজঙ্গল আছে

প্রশ্ন

খুলনার বাগেরহাট জেলায় আমার দাদার বাড়ি। সেখানে অনেক বনজঙ্গল আছে। আর বনজঙ্গলে রয়েছে বিভিন্ন প্রজাতির প্রাণী। এছাড়া বর্ষার পানি কমে গেলে ঝাঁকে ঝাঁকে বক নামে ফসলী মাঠে। বছরের একটা সময় আমি ও আমার বন্ধু সাদিক জঙ্গলে পাখি শিকার করে থাকি। কখনো গুলি কখনো গুলতি দিয়ে। গুলি ছোড়ার আগে আমরা বিসমিল্লাহ পড়ে নেই। এরপর শিকারকৃত পাখিটাকে জীবিত ধরতে পারলে পুনরায় বিসমিল্লাহ বলে তা যবাই করি। কিন্তু কখনো কখনো শিকারকৃত পাখি গুলির আঘাতে মারা যায়। তখন আর যবাই করা সম্ভব হয় না। প্রশ্ন হল, গুলি বা গুলতি দ্বারা শিকারকৃত পাখি যবাইয়ের আগে মারা গেলে তা খাওয়া জায়েয হবে কি?

উত্তর

ধারবিহীন গুলি বা গুলতি দ্বারা শিকারকৃত পাখি যবাইয়ের আগে মারা গেলে তা খাওয়া জায়েয হবে না। অবশ্য গুলির অগ্রভাগ যদি ধারালো হয় এবং তা ছোড়ার সময় বিসমিল্লাহ পড়ে নেওয়া হয় এবং ঐ ধারালো গুলির আঘাতে প্রাণী জখম হয়ে রক্ত বের হয় তবে ঐ প্রাণী যবাইয়ের পূর্বে মারা গেলেও তা খাওয়া জায়েয হবে।

-ইলাউস সুনান ১৮/৬০; তাকমিলা ফাতহুল মুলহিম ৩/৪৮৮; ফাতাওয়া খানিয়া ৩/৩৬০; আলবাহরুর রায়েক ৮/২২৯; আদ্দুররুল মুখতার ৬/৪৭১

উত্তর দিয়েছেন : মাসিক আল-কাওসার

Pin It on Pinterest

Hatay masaj salonu Diyarbakır masaj salonu Adana masaj salonu Aydın masaj salonu Kocaeli masaj salonu Muğla masaj salonu Yalova masaj salonu Gaziantep masaj salonu Kütahya masaj salonu Elazığ masaj salonu Bursa masaj salonu Konya masaj salonu Samsun masaj salonu Mersin masaj salonu Manisa masaj salonu Afyon masaj salonu Kütahya masaj salonu Çanakkale masaj salonu Edirne masaj salonu Yozgat masaj salonu Çorum masaj salonu>