রেজিস্টার

Sign Up to our social questions and Answers Engine to ask questions, answer people’s questions, and connect with other people.

লগিন

Login to our social questions & Answers Engine to ask questions answer people’s questions & connect with other people.

Forgot Password

Lost your password? Please enter your email address. You will receive a link and will create a new password via email.

Please briefly explain why you feel this question should be reported.

Please briefly explain why you feel this answer should be reported.

Please briefly explain why you feel this user should be reported.

তাবূকের পথে খেজুর কান্ডে হেলান দিয়ে রসূলুল্পাহ (সা)- এর খুতৰা দান প্রসংগ

তাবূকের পথে খেজুর কান্ডে হেলান দিয়ে রসূলুল্পাহ (সা)- এর খুতৰা দান প্রসংগ

তাবুকের পথে খেজুর কাণ্ডে হেলান দিয়ে
রাসুলুল্লাহ্ (সা) — এর খুতবা দান প্রসৎগ

ইমাম আহমাদ (র) রিওয়ায়াত করেছেন, আবুন নাঘৃর হাশিম ইবনুল কাসিম, ইউনুস ইবন
মুহাম্মদ আল যুআদ্দিব ও হাজ্জাজ ইবন মুহাম্মদ (র) আবু সাঈদ আল থুদরী (রা ) থেকে
বর্ণনা করেন যে, তিনি বলেছেন, রড়াসুলুল্লাহ (সা) তাবুক অভিযান কালে থু৩ তব৷ দিলেন ৷ তখন
তিনি একটি খেজুর কাণ্ডে (হলান দিয়ে বলেছিলেন ৷ থুতবড়ায় তিনি বললেন,

আমি কি তােমাদেরকে সর্বোত্তম ব্যক্তি ও সর্ব নিকৃষ্ট ব্যক্তি সম্পর্কে অবহিত করব না ? যে
ব্যক্তি তার ঘোড়ার পিঠে কিংবা তার উটের পিঠে কিংবা পদব্রজে আমৃত্যু আল্লাহর পথে জিহাদ
করে যায় সে সঝোওম ব্যক্তিদের অড়র্ভু জ; আর যে যে পরােয়া পাপাচাবী ব্যক্তি আল্লাহর
কিতাব পড়ার পরেও তার কোন কিছুরণ্ তায়াক্কা করে না , সে সর্ব নিকৃষ্টদের অন্তর্ভুক্ত ৷ নাসাঈ
(র) এ হাদীসখানি কুতায়ব৷ (র) থেকে উল্লেখিত ননদে রিওয়ায়াত করেছেন ৷ তিনি বলেছেন,
এ সনদে অন্যতম বাৰী আবুল খাত্তাব সম্পর্কে আমি অবগত নই ৷

রায়হড়াকী (র) ইয়াকুব ইবন মুহাম্মদ আর যুহরী (র) সুত্রে উকব৷ ইবন আমির আল জুহানী
(রা) থেকে রিওয়ায়াত করেছেন ৷ তিনি যুদ্ধে আমরা রাসুলুল্লাহ (সা)এব সহগামী
হলাম ৷ পথে কােন এক মনযিলে রাসুলুল্লাহ (সা ) ঘুমিয়ে পড়লেন এবৎ সকালের সুর্য এক বন্ধুর
বরাবর উচু হওয়ার আগ পর্যন্ত তার চো ৷খ খুলল না ৷ এ স্যার জেগে উঠা তই তিনি বললেন, হে
বিলালৰু আমাদের পক্ষে কজরের ওয়াক্তের প্ৰতি নজর বাখবে এ কথা কি তোমাকে আগেই
বলে রাখিনি ? ৰিলাল (বা) বললেন, ইয়৷ রাসুলাল্লাহশু ঘুম আমাকে তেমনই পেয়ে বসেছিল,
যেমনটহ্অ আপনাকে পেয়ে বসেছিল ৷ বর্ণনাকারী বলেন, তখন রাসুলুল্লাহ (সা) জ তার যে অবস্থান
ক্ষেত্র ছেড়ে একটু সরে এসে সেখানে স্যলাত আদায় করলেন এ বা দিনের অধিকাৎ শ সময় ও
রাতম্ভব স্ফর করে সকাল রেলা তাৰুকে উপনীত হলেন ৷ সেখানে যথাথোগ্য ভাষায় আল্লাহ্
পাকেরহ প্হ্ ও ছানা পাঠ করার পর তার তাতিভাবণে তিনি বললেন,

তারপর লোক সকল সর্বাধিক সত্য ভাষণ আল্লাহর কিতাব; সর্বাধিক নির্ভরযোগ্য অবলম্বন
হচ্ছে তাকওয়ার কালিম; শ্রেষ্ঠ দীন হচ্ছে ইব্রাহীম (আ) এর দীন; শ্রেষ্ঠ সুন্নত হচ্ছে মুহাম্মদ
(না)-এর সুন্নত; সর্বাধিক অভিজাত বাহন হচ্ছে আল্লাহর যিকর ৷ সর্বোত্তম কাহিনী হচ্ছে এ
আলকুরআনঃ ৷ সর্বাধিক গুরুতুপুর্ণ ব্যাপার হচ্ছে আল্লাহর নির্ধারিত ফরজসমুহ এবং সর্ব
নিকৃষ্ট৩ তম ব্যাপার হল ৰিদআত ব নব উদ্ভ দাবিত ব্যাপারসমুহ সুন্দরতম অর্দশ নবীপণের
আদর্শ সর্বাধিক মর্যাদার মৃত্যু হচ্ছে শহীদপণের মৃঙু >বম৩ম ৩জ্যোহু হল হিপ য়ওেব পরে
পােমরাহী উত্তম আমল তা, যা বলোঃং বন্ব ৬ওম হপায় য়৩ তা, যা অনুসৃত হয় জঘন্যতম
অন্ধতু, অত্তরের অন্ধতু ৷ উপরের (বা৩ ব) হ৩ ণঢেব (গ্র ২৩ র ) হ ওেব ঢেয়ে উত্তম য স্বল্প
ও পরিমিত, তা পাফলতি সৃষ্টিকারী অধিকের চাইতে উত্তম ৷ মৃত্যুর লগ্রে অপারগতার অজুহাত
হচ্ছে নিকৃষ্টতম অজুহাত কিয়মত দি ব পের ৩ণু৩প নিনু১ষ্ট৩ম ৩ণু৩প ণোব১ সমাজে এমন
কিছু ল্যেকও রয়েছে, যার বিলন্বে ছাড়া জুমুঅ জামাঅতে আসে ন ৷

এমন কিছু ল্যেকও রয়েছে, যারা গাফলতি করে আল্লাহর নাম নেয় না ৷ মিথ্যাবদী রসনা
ক্ষান্যতম পাপের অকর ৷ মনের প্ৰচুইে সর্বোত্তম প্রাচুর্য ৷ উত্তম পাথেয় হল তাকওয় ৷
হিকমাত ও প্রজ্ঞার শীর্ষে হল মহীয়ানশ্গয়ীয়ান আল্লাহর ভয় ৷ হৃদয় মঝে গ্রথিত বিষয়সমুহেব
মাঝে উত্তম হল ইয়কীন ও অবিচল বিশ্বাস ৷ দ্বিধা ও সংশয় হচ্ছে কুফর পর্যায়ভুক্ত ৷ মতের
জ্জন্যে উচ্চ স্বরে ৰিলাপ হচ্ছে জ হিলিয়্যাতের কাজ আমনত (গণীমঙে তর সাল থেকে) চুরি ও
জ্বাহোন্নন্মের খড়কুটো স্বরুপ অশ্লীল বনবৰু>র্চা হব ল সে ব বশ জ মদ হচেছ সকল পাপের
আঃ নয়ীশ শয়তানের ফাদ যৌবন উন্মাদন বিংশষ নিকৃষ্ট৩ তম উপার্জন সুদের উপার্জন ৷
ৰিকুষ্টতম উদরপুর্তি ইয়াতীমের সম্পদ গ্রাস ৷৩ ভাগ্যবান সে, যে অন্যের অবস্থা দেখে শিক্ষা

গ্রহণ করে ৷ দৃর্ডাগা সে , যে মাতৃপর্ভেহ দুর্তাগা ৷ তোমাদের প্ৰভ্রুতাকের ণ্শব পতব্য তার হাত’
আসল বিচার্য হচ্ছে আথেরাত (অর্থাৎ আখিরৰ্তের মুক্তি বা শাস্তি) ৷ আমলের মানদণ্ড তাহৃ
সমাপ্তিস্তর ৷ নিকৃষ্টতন বিবৃতি হচ্ছে মিথ্যা বিবৃতি ৷ মা আসবেই, তা নিকটবর্তী ৷ ঈমানদারয়ে
গালগােলি করা ফালেকী কাজ ৷ ঈমানদারের সাথে হানড়াহানি কুফরী কাজ ৷ (গীবত করে
ঈমানদারের থেম্পোত খাওয়া আল্লাহর অবাধ্যতদ্যেরুপ ৷ ঈমানদারের সম্পদের মর্যাদা তাহ্
রক্তের মর্যাদাতুল্য ৷ অহেতুক আল্লাহ্র নামে কসম করার দুঃসাহসীকে আল্লাহ্ মিথ্যাবড়ার্দ
প্রতিপন্ন করেন ৷ তার কাছে মাপফিরাত কড়ামনাকত্বৰীকে তিনি ক্ষমা করেন ৷ মার্জনাকাৰীৰে
আল্লাহ্ও মার্জনড়া করেন ৷ ত্রেণর সম্বরনকাৰীকে আল্লাহ্ তার বিনিময় দেন ৷ বিপয়ুঢ
ধৈর্যধারনকড়ারীকে আল্লাহ্ গ্রতিদান দেন ৷ খ্যাতি সন্ধানীকে আল্লাহ্ (পার্থিব) খ্যাতি দিয়ে দেন
সবরকত্ত্ববীকে আল্লাহ্ দ্বিগুণ দেন ৷ যে আল্লাহর নাফরমানী করে, আল্লাহ্ তাকে আমার দেন
ইয়া আল্লাহ্! আমাকে এবং আমার উম্মতকে মাফ করুন ৷ ইর৷ আল্লাহ্৷ আমাকে এবং আমাহৃ
উনতেকে ক্ষমা করুন ৷ ইয়া আল্লাহ্শু আমাকে এবং আমার উম্মতকে মাণফিরাত করুন ৷ ( কথাটি তিনি :িনরার বললেন ৷ ৩ারপর বললেন, “আমি আমার জন্য এবদ্ব
ৰুতামাদের জন্য মাপফিরাত কামনা করছি ৷ ” এ হাদীসখড়ানি পরীব পর্যায়ের এবং এটা কিছুট
মুনকার পর্যায়ের ৷ এবং এর সনদে দুর্বলতড়া বিদ্যমান ৷ অড়াল্লাহ্ই সমধিক অবগত ৷

আবু দাউদ (র) বলেন, আহমাদ ইবন সাঈদ আল হামদানী ও সুলারমান ইবন দাউদ (রট্রু
সাঈদ ইবন পাযাওয়ান (বা) তার পিতা থেকে বর্ণনা করেছেন যে, তিনি হত্রুজ্জর সফরে তাবুবে
অবতরণ করলেন ৷ সেখানে জনৈক পংগু ব্যক্তিকে দেখতে পেয়ে তাকে তার পংগুত্নের ব্যাপারুহৃ
জিজ্ঞাসা করলেন ৷ সে বলল, আমি এখনই তোমাকে একখানি হাদীস শুনাচ্ছিছু আমাহৃ
অনুরোধ , যতদিন তুমি শুনরে যে, আমি জীবিত রয়েছি, ততদিন তুমি তা কারো কাছে বত্তে
করবে না ৷ “রাসুলুল্লাহ (সা) তাবুকে একটি খেজুর গাছের কাছে অবতরণ করলেন এবৰু
বললেন, “এ দিকেই আমাদের কিবলা ৷ তারপর সে পাছটির দিকে মুখ করে দাড়িয়ে সালাত্
শুরু করলেন ৷ বচ্নািকারী বলেন, আমি যে দিকে দ্রুত এগিয়ে আসছিলাম ৷ তখন আমি উচ্ছভ্রু
তরুণ ৷ আমি রাসুল (না) ও জর খেজুর গাছের মাঝ দিয়ে চলে থেললাে ৷ তিনি বললেন, হে
আমাদের সালাত কর্তন করেছে, আল্লাহ্ তার পদচারণা কর্তন করুন ৷” (বর্ণনাকারী বলেন, সে
দিন থেকে আজ পর্যন্ত আমি আর আমার এ পায়ে ভর দিয়ে র্দড়াড়াতে পারি না ৷) তারপর আৰু
দাউদ (র) সাঈদ ইবন অড়াযীয অড়াত্-তড়ানুথী (র)ইয়ড়াযীদ ইবন নামিরান (বা ) থেকে অৰুরুণ্
রিওয়ায়াত করেছেন ৷ ইয়াষীদ (র) বলেনঃ, তাবুকে আমি এক পংগুকে দেখলাম ৷ (স রলল
আমি একটি মাধ্যম আরােহী হয়ে রাসুলুল্লাহ (সা) এর সম্মুখ থেকে পথ অতিক্রম করলাম
তিনি তখন সড়ালড়াত আদায় করছিলেন ৷ তিনি বললেন, ইয়া আল্লাহ্৷ তার পদচারণা রহিত কভ্রুন্
দিন ৷ তারপর থেকে আমি আর পা দিয়ে হাটতে পারি না ৷ অন্য এক বিওয়ফ্লোতে রয়েছে “৫:
আমাদের সল্যেত কর্তন করেছে, আল্লাহ; তার পদচারণা কর্তন করুন ৷ ”

মুআবিয়া ইবন আবু মুআবিয়া (বা) — এর জানাযা প্রসংণ

বায়হাকী (র) ইয়াঘীদ ইবন হারুন (র)আনাস ইবন মালিক (বা ) সুত্রে বলেন, আমহ
রড়াসুলুল্লাহ (না)-এর সাথে তাবুকে অবস্থান করছিলাম ৷ সুর্য পরিচ্ছন্ন ঔজ্জ্বল্য নিয়ে উদিত হল

Related Posts

Leave a comment

You must login to add a new comment.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.