in

নামাযের সময় চোখ খোলা রাখলে আমার দৃষ্টি এদিক-ওদিক চলে যায়

qawmi madrasa books download
qawmi madrasa books download
প্রশ্ন

নামাযের সময় চোখ খোলা রাখলে আমার দৃষ্টি এদিক-ওদিক চলে যায়। যখন যেখানে দৃষ্টি থাকা দরকার সেখানে থাকে না। এজন্য অনেক সময় চোখ বন্ধ করে রাখি। এটা আমার মনোযোগ বৃদ্ধিতেও সহায়ক হয়। এ অবস্থায় চোখ বন্ধ রাখাটাই কি আমার জন্য উত্তম? নাকি এর পরও চোখ খোলাই রাখব?

উত্তর

নামাযে চোখ খোলা রাখা এবং দাঁড়ানো অবস্থায় সিজদার স্থানে দৃষ্টি রাখা সুন্নত। নামাযে অধিকাংশ সময় চোখ বন্ধ রাখা সুন্নতের খেলাফ। হাদীস শরীফে এসেছে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম (দাঁড়ানো অবস্থায়) সিজদার জায়গায় দৃষ্টি রাখতেন। (দেখুন : তাফসীরে তবারী ৯/১৯৭)

অন্য বর্ণনায় এসেছে, তোমাদের কেউ যখন নামাযে দাঁড়ায় সে যেন চোখ বন্ধ না রাখে।-আলমুজামুল কাবীব, হাদীস ১০৯৫৬; ইলাউস সুনান ৫/১২১

সুতরাং চোখ খুলেই নামায পড়তে হবে এবং দৃষ্টিকে সিজদার স্থানে রাখার চেষ্টা করতে হবে।

অবশ্য কারো অবস্থা যদি এমন হয় যে, নামাযে তার দৃষ্টি খুব বেশি এদিক সেদিক চলে যায় তাহলে সে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসা পর্যন্ত মাঝেমধ্যে চোখ বন্ধ রাখতে পারবে। প্রখ্যাত তাবেয়ী ইবনে সিরীন রাহ. বলেন, নামাযে যার চোখ বেশি এদিক-সেদিক চলে যায় তাকে চোখ বন্ধ রাখার অনুমতি দেওয়া হত। -মুসান্নাফ আবদুর রাযযাক, হাদীস ৩৩৩০

তবে ধীরে ধীরে চোখ খোলা রেখে একাগ্রতার সঙ্গে নামায পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।

-বাদায়েউস সানায়ে ১/৫০৭; তাবয়ীনুল হাকায়েক ১/৪১১; হালবাতুল মুজাল্লী ২/২৫৪

উত্তর দিয়েছেন : মাসিক আল-কাওসার

What do you think?

qawmi madrasa books download

আমাদের ইমাম সাহেব কেরাত শেষ করে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর

qawmi madrasa books download

গত রমযানে একদিন আমি বিতরের তৃতীয় রাকাতে ইমামের সাথে শরিক